ভোলার অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার

ভোলার অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার ছবি-প্রতিকী

ভোলার চরফ্যাসন উপজেলার শশীভূষণে ঝুমুর বেগম(১৮) নামের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার(১ এপ্রিল) দুপুর ১ টার দিকে উপজেলার শশীভূষণ থানার হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের ঝুমুরের পিতার বাড়ি থেকে এ মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার হওয়া মৃতদেহ অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ ঝুমুর বেগম উপজেলার শশীভূষণ থানার হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের হাজারীগঞ্জ গ্রামের মোঃ হারুন মোল্লার মেয়ে ও একই এলাকার জুয়েলের দ্বিতীয় স্ত্রী।

নিহত ঝুমুরের মা বিলকিছ বেগম অভিযোগ করে জানান, ঝুমুর বেগম ২ বছর আগে একই এলাকার দূসস্পর্কের মামা রুহুল আমিনের ছেলে জুয়েলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায় তারা শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় মাতাব্বরেরা তাদের দু’জনকে ৩ লক্ষ টাকা কাবিন ধার্য করে ধর্ষক জুয়েলের সাথে বিবাহ পড়িয়ে দেন।

তিনি আরো জানান, বিয়ের পর থেকে তাদের দু’জনের মধ্যে ঝগড়া-বিবাধ চলছিল। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। এছাড়া ঝুমুরকে স্বামী জুয়েলের পরিবার লোকজন হেয়-প্রতিপন্ন করে কথা বলতে থাকেন। মেয়েটি মানসিক ও সামাজিক বঞ্চনা থেকে মুক্তি পেতে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন। আমি মেয়ে হত্যার বিচার দাবী করছি।

শশীভুষণ থানার অফিসার ইন-চার্জ(ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন,মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে কেউ বলছেন আত্মহত্যার প্ররোচনা ও কেউ বলছেন মানসিক সমস্যা কারণে আত্মহত্যা করেছেন। ময়না তদন্ত রির্পোট এলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে বলে এই কর্মকর্তা জানান।

আপনার মতামত লিখুন :