লক্ষ্মীপুরে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক কর্মকর্তাকে মারধর, কারাগারে ইউপি সদস্য

লক্ষ্মীপুরে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক কর্মকর্তাকে মারধর, কারাগারে ইউপি সদস্য অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মো. জামাল হোসেন। ছবি- সংগৃহীত

লক্ষ্মীপুরে ‘আমার বাড়ি, আমার খামার’ প্রকল্প ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের এক কর্মকর্তাকে মারধর করে কারাগারে গেলেন মো: জামাল হোসেন নামে এক ইউপি সদস্য। বৃহস্পতিবার দুুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ। 

বুধবার রাতে জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেন মারধরের শিকার আমার বাড়ি আমার খামারের জুনিয়র অফিসার (মাঠ) আলী আহমদ। অভিযুক্ত ইউপি সদস্য সদর উপজেলার কুশাখালী ইউনয়নের নলডগী গ্রামের নুরুল ইসলামের পুত্র। তিনি ওই ইউপির ৭ নং ওয়ার্ড সদস্য (মেম্বার)। 

মামলায় হামলার অভিযোগ এনে আরও ৪-৫ জন অজ্ঞাত লোককে আসামী করা হয়। বুধবার বিকেলে সদর উপজেলার কুশাখালীর নলডগী গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

‘আমার বাড়ি আমার খামার’ প্রকল্পের লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা সমন্বয়ক মো: সোলায়মান দুলাল জানান, ইউপি সদস্য জামাল হোসেন বিগত ২০১৬ সালে তার মা ও ভাতিজার নামে ৪০ হাজার টাকা ঋণ নেয়। কিন্তু তারা ঋণের টাকা পরিশোধ করেনি। বিভিন্ন সময় ঋণের টাকা জন্য মাঠ কর্মকর্তারা গেলে সে টালবাহানা শুরু করেন।

বুধবার ‘আমার বাড়ি আমার খামার’র জুনিয়র অফিসার (মাঠ) আলী আহমদ সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা তার কাছে ঋণের টাকা চাইলে সে তাদের অকথ্য ভাষা গালিগালাজ করে। এক পর্যায়ে মেম্বার জামাল ও তার লোকজন আলী আহমদসহ অন্যান্য কর্মীদের মারধর করে। 

বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানালে তারা স্থানীয় প্রশাসন ও থানা পুলিশকে অবহিত করেন। পরে দাসেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আটক করে চন্দ্রগঞ্জ থানায় নিয়ে আসেন। রাতেই তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করলে তাকে ওই মামলায় আটক করে বৃহস্পতিবার দুপুরে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুর রিদোয়ান আরমান শাকিল বলেন, ঋণ নিয়ে টাকা না দিয়ে উল্টো কর্মকর্তাদের গালিগালাজ ও মারধরের ঘটনায় তাৎক্ষণিক পুলিশ পাঠিয়ে ইউপি সদস্য জামাল আটক করা হয়।

চন্দ্রগঞ্জ থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন বলেন, এ ঘটনার সাথে জড়িতকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন :