কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের মহান স্বাধীনতা দিবস পালন

কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের মহান স্বাধীনতা দিবস পালন ছবি সংগৃহিত

আজ ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস। কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের উদ্যোগে মহান শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে কুড়িগ্রাম বিজয় স্তম্ভে পুস্প স্তবক অর্পন করা হয়।

কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ সকাল ৬.০০ টায় বিজয় স্তম্ভে মহান স্বাধীনতা দিবস ২০২০ উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন করে। শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন করেন কুড়িগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেনহাজুল আলম (পুলিশ সুপার পদে পদন্নোতিপ্রাপ্ত)। আরও উপস্থিত ছিলেন এএসপি সার্কেল সদর উৎপল রায়, এএসপি ফারজানা হক (শিক্ষা নবিশ) কুড়িগ্রাম সদর থানা অফিসার ইনচার্জ মাহফুজার রহমান সহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যগণ।

২৫ শে মার্চ ভয়াল কালো রাতে প্রথম আক্রমনের শিকার রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের ঘুমন্ত বাঙ্গালী পুলিশ সদস্যরা। সেদিন হানাদার পাকিস্থানীদের বিরুদ্ধে পাল্টা আক্রমণ ও প্রতিরোধে প্রথম বুলেটটিও ছিলো বাঙ্গালী পুলিশের। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে সবাই স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। দেশের ক্রান্তিলগ্নে দীর্ঘ ৯ মাস মুক্তিযুদ্ধে বাঙ্গালী পুলিশ সদস্যরাও নিয়মিত অন্যান্য বাহিনী ও মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে কাঁধে কাধ মিলিয়ে যুদ্ধ করে। দীর্ঘ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর ৩০ লাখ শহীদ ও ২ লাখ মা বোনের আত্মত্যাগে বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করে।

স্বাধীনতা যুদ্ধের ৪৯ বৎসর পর এই প্রথম করোনাভাইরাস মোকাবেলায় স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচীকে সংক্ষিপ্ত আকারে করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ সরকার।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম বলেন, করোনাভাইরাস এখন বিশ্বময় দূর্যোগে পরিনত হয়েছে। করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকার জনগণকে নিরাপত্তা দিতে যে সকল কার্যক্রম প্রনয়ন করেছে তা বাস্তবায়নে জেলা পুলিশ কুড়িগ্রাম নিরলস কাজ করে চলেছে। মহান স্বাধীনতা দিবসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ পুর্বক মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন করে অন্যান্য কর্মসূচী সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে। কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ মহান ৭১ এর যুদ্ধের মত করোনাভাইরাস মোকাবেলা যুদ্ধে জেলাবাসীকে শতভাগ নিরাপত্তা দিতে কাজ করছে এবং এ যুূদ্ধে আমাদের  সফল হতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন :