কানাডা মাইগ্রেশনে সঠিক তথ্য নিতে হবে

কানাডা মাইগ্রেশনে সঠিক তথ্য নিতে হবে

বাংলাদেশ থেকে কানাডায় অভিবাসী হতে আগ্রহী ব্যক্তিদের এ–সম্পর্কিত সঠিক তথ্য জেনে নিজেদের প্রস্তুত করতে হবে। ইমিগ্রেশন নিয়ে নানা ধরনের অসত্য তথ্য, গুজবের মাধ্যমে প্রতারণার জাল ছড়ানো হয়েছে। সঠিক তথ্যই কেবল সাধারণ মানুষকে ইমিগ্রেশন নিয়ে প্রতারণা থেকে রক্ষা করতে পারে। কানাডায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সফল তিন নারী অভিবাসন নিয়ে গত শুক্রবার রাতে আয়োজিত এক ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানে এ মতামত দেন। বিশ্ব অভিবাসী দিবস উপলক্ষে টরন্টো থেকে আগামী ১ জানুয়ারি প্রকাশিতব্য ইমিগ্রেশনবিষয়ক নিউজ পোর্টাল ‘ইমিগ্রেশন নিউজ২৪’ এই আলোচনার আয়োজন করে।

 ‘তিন সফল বাংলাদেশি কানাডিয়ান নারীর গল্প’ শিরোনামে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে নিজেদের সংগ্রাম ও সাফল্যের ইতিবৃত্ত তুলে ধরে বক্তব্য দেন ব্যারিস্টার চয়নিকা দত্ত, অন্টারিওর প্রভিন্সিয়াল সংসদের সদস্য, কানাডায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রথম নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ডলি বেগম এবং উইমেন এক্সিকিউটিভ নেটওয়ার্ক ঘোষিত ২০২০ সালের কানাডার ১০০ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় স্থান পাওয়া নাজিয়া শাহরীন।

‘ইমিগ্রেশন নিউজ২৪’–এর সম্পাদক ও প্রকাশক উজ্জ্বল দাশের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাডার বাংলা পত্রিকা ‘নতুন দেশ’–এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী।

চয়নিকা দত্ত বলেন, অভিবাসনের জন্য কানাডা একটি অসাধারণ সুযোগ এবং সম্ভাবনার দেশ। প্রতিবছরই বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে কানাডা অভিবাসী নেয়। বাংলাদেশিরা সেই সুযোগ নিতে পারেন। কিন্তু অভিবাসী হওয়ার জন্য দীর্ঘ প্রস্তুতি নেওয়ার দরকার। কানাডায় অভিবাসনের জন্য কী কী যোগ্যতা লাগে, কোন ক্যাটাগরিতে লোক নেওয়া হবে এসব তথ্যই আছে সরকারি ওয়েবসাইটে। এগুলো বিশ্লেষণ করেই অভিবাসনের জন্য প্রস্তুত হওয়া দরকার।

চয়নিকা দত্ত বলেন, কানাডার ইমিগ্রেশন নিয়ে বাংলাদেশে নানা ধরনের গুজব এবং অসত্য তথ্য ছড়িয়ে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। অনেকেই এতে প্রতারিতও হচ্ছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ডলি বেগম বলেন, কানাডা সরকার অভিবাসনের মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে লোক নিয়ে আসে। কেবল লোক আনার মধ্য দিয়েই সরকারের দায়িত্ব শেষ হয়ে যায় না। এ দেশে আসার পর তাঁদের সুযোগ–সুবিধা নিশ্চিত করার দিকেও সরকারের নজর দেওয়া উচিত।

এমপিপি হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পথে নিজের সংগ্রামের কথা উল্লেখ করে ডলি বেগম বলেন, তাঁর আগে অনেকেই কানাডার বিভিন্ন পর্যায়ের নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন, রাজনীতিতে অংশ নিয়ে কমিউনিটির জন্য পথ তৈরি করে দিয়েছেন। সে পথ ধরেই তিনি জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন। নিজেকে ‘এখনো সফল নন’ দাবি করে ডলি বেগম বলেন, আরও বাংলাদেশি বিশেষ করে বাংলাদেশি নারীরা কানাডার নানা পর্যায়ে নির্বাচিত হয়ে এলেই তিনি নিজেকে সফল বা কিছু একটা অর্জন করতে পেরেছেন বলে মনে করবেন।

নাজিয়া শাহরীন নিজের সংগ্রামের কথা তুলে ধরে বলেন, কানাডা অভিবাসনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন পেশা বা বিভিন্ন সেক্টরে লোক খোঁজে। সেগুলো বিশ্লেষণ করে তাদের চাহিদা অনুসারে নিজেদের প্রস্তুত করতে পারলে কানাডায় বাংলাদেশ থেকে অভিবাসীর সংখ্যা বাড়ানো সম্ভব।

শওগাত আলী বলেন, কানাডা ইমিগ্রেশনের সঠিক তথ্য যাতে বাংলাদেশের মানুষ সহজে পেতে পারে, তার ব্যবস্থা থাকা দরকার। এটা ঠিক, কানাডা ইমিগ্রেশনের ওয়েবসাইটে অনেক তথ্য আছে, কিন্তু সেটা পড়ে পুরোপুরি বুঝে নেওয়া অনেকের জন্যই কঠিন। আবার অনেকে এই তথ্যই জানেন না। ফলে বাংলা ভাষায় সহজবোধ্যভাবে ইমিগ্রেশনের নানা তথ্য মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা থাকা দরকার।

‘ইমিগ্রেশন নিউজ২৪’–এর সম্পাদক ও প্রকাশক উজ্জ্বল দাশ জানান, আগামী বছরের ১ জানুয়ারি থেকে তাদের ‘ইমিগ্রেশন নিউজ২৪’ সারা বিশ্বের পাঠকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। বিশ্বব্যাপী বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য ইমিগ্রেশনের তথ্যবিষয়ক একটি নির্ভরযোগ্য তথ্যভান্ডার হিসেবে ইমিগ্রেশন নিউজ২৪কে গড়ে তুলতেই এই প্রচেষ্টা। www.immigrationnews24.com নিউজ পোর্টাল ও ফেসবুক পেজ www.facebook.com/imminews24 কিংবা ইউটিউব চ্যানেলে/immigrationnews24 আগ্রহীদের যুক্ত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :