কাজের লোভ দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, আটক ১

কাজের লোভ দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, আটক ১

কাজ দেওয়ার নামে নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীর একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে এক কিশোরী (১৩) কে আটক রেখে দিনভর ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সুধারাম থানায় ধর্ষক জসিম উদ্দিন ও এতে সহায়তাকারী খতিজা খাতুনের নামে মামলা করা হয়েছে। খতিজাকে আটক করা হলেও ঘটনার মূল হোতা জসিম উদ্দিন পলাতক রয়েছে।

আজ বুধবার দুপুরে ভিকটিমকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।। জানা যায়, সুবর্ণচর উপজেলার চর মাকছুমুল গ্রামের দরিদ্র পরিবারের ঐ কিশোরীকে বাসায় কাজ দেওয়ার কথা বলে পার্শ্ববর্তী কেরামতপুর জনতা বাজার এলাকার জসিম উদ্দিন ও খতিজা খাতুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মাইজদী নিয়ে আসে। সেখানে এনে ভিকটিমকে বাসায় না নিয়ে একটি আবাসিক হোটেলে ওঠে জসিম ও খতিজা। ঐ দিন রাতে হোটেলে জসিম ভিকটিমকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ঘটনাক্রমে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মাহমুদ জনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ভিকটিমকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। আমরা এ ঘটনায় সহায়তাকারী খতিজা খাতুনকে গ্রেফতার করেছি এবং মূল হোতা জসিমকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :