ভোলায় পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের মৃত্যুদণ্ড

ভোলায় পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের মৃত্যুদণ্ড ছবি- পিতা হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ছেলে আবু সায়েদকে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

ভোলায় পিতা আঃ মুনাফ সাজিকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে পুত্র আবু সায়েদকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ভোলা জেলা দায়রা জজ আদালত। একই সাথে আসামিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছর সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) দুপুর ১২ টার দিকে ভোলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ডঃ এবিএম মাহমুদুল হক চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার রায় দেন।

মৃত্যু দণ্ডপ্রাপ্ত  আবু সায়েদ ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব  ইলিশা ইউনিয়নের চর আনন্দ গ্রামের ৬ নং ওয়ার্ডের মৃত আঃ মুনাফ সাজির ছেলে।

জানা যায়, ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড চর আনন্দ গ্রামে ২০১৭ সালের ২৩ আগস্ট ছেলে আবু সায়েদ তার বাবা আঃ মুনাফ সাজির মাথায় শাবল দিয়ে আঘাত করেন। স্থানীয়রা আহতকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

পরদিন ২৪ আগস্ট তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বরিশালের চিকিৎসকরা তাকে আরো উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করেন। ২৫ আগস্ট ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। বাড়িতে একটি তেঁতুল গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে বাবা-ছেলের মধ্যে এ ঘটনার সূত্রপাত।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ছেলে আঃ রব বাদী হয়ে ভোলা সদর থানায় মামলা করেন। এ ঘটনায় দীর্ঘ ৩ বছর ৬ মাস মামলাটি শুনানি শেষে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সেসন ৩২৭/২০১৭ নম্বর মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ ১০ জন সাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করে। সাক্ষ্য প্রমাণে আসামি আবু সায়েদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে মৃত্যুদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের মামলাটি পরিচালনা করেন সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট সৈয়দ আশরাফ হোসেন লাভু ও আসামি পক্ষে মামলাটি টরিচালনা করেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট স্বপন কৃষ্ণ দে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সর্বোচ্চ সাজা দেওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে আসামি পক্ষের আইনজীবী এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিলে যাবেন বলে জানিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন :