মায়ের সিনেমা দেখে মেয়ের কাণ্ড

মায়ের সিনেমা দেখে মেয়ের কাণ্ড কাজল ও বড় সন্তান নাইশা

অজয় দেবগন ও কাজল বলিউডের জনপ্রিয় তারকা দম্পতি। তাদের বড় সন্তান নাইশা মায়ের সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়ে। কাজল নিজেই অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খানের একটি রেডিও শো-তে হাজির হয়ে এ কথা জানিয়েছেন।   

এ প্রসঙ্গে কাজল জানান, আমার অভিনীত ‘উই আর ফ্যামিলি’ সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে নাইশাকে নিয়ে দেখতে গিয়েছিলাম। সিনেমা  দেখতে  দেখতে আচমকা নাইশা কাঁদতে শুরু করে। এ সিনেমায় তিন সন্তান রেখে আমি ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যাই। নাইশা পর্দায় আমার মৃত্যু সহ্য করতে পারেনি। যার কারণে কান্না শুরু করে প্রেক্ষাগৃহে।  

২০১০ সালের ৩রা সেপ্টেম্বর ‘উই আর ফ্যামিলি’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। সিদ্ধার্থ পি মালহোত্রা পরিচালিত এ সিনেমায় আরও অভিনয় করেন অর্জুন রামপাল, কারিনা কাপুর খান প্রমুখ। ১৯৯২ সালে অভিনেত্রী কাজলের বলিউডে অভিষেক ঘটে। তখন তার মাত্র সতেরো বছর বয়স।  

১৯৯৯ সালে কাজল যখন অভিনয় ক্যারিয়ারের শীর্ষে তখন অজয়ের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। ২০০৩ সালের ২০ শে এপ্রিল ঘর আলো করে আসে কন্যা নাইশা। ২০১০ সালের ১৩ই সেপ্টেম্বর পুত্র যুগ জন্ম নেয়।

আপনার মতামত লিখুন :