প্রায় ৪০ বছর পুরোনো উপন্যাসে বিস্মিত বিশ্ব

প্রায় ৪০ বছর পুরোনো উপন্যাসে বিস্মিত বিশ্ব সংগৃহীত ছবি

অন্তত ২৭টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ হাজার ছাড়িয়েছে। আর, এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১৭ শতাধিকের বেশি মানুষ। চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে উৎপত্তির পর ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বময়। তবে, এখন প্রশ্নের তীর ছুটছে চীনের দিকেই। প্রশ্নটা এমন যে, জীবাণু অস্ত্র বানাতেই নাকি ভাইরাসটি তৈরি করেছিল তারা। 

আর, এর নেপথ্যে রয়েছে ১৯৮১ সালে প্রকাশিত লেখক ডিন কুনত্জের রহস্য উপন্যাস ‘আইজ অব ডার্কনেস’। সেই উপন্যাসে ‘উহান-৪০০’ নামে একটি ভাইরাসের কথা বলেছেন কুনৎজ। তিনি সেখানে লিখেছেন, ‘বায়োলজিক্যাল উইপন প্রোগ্রামের’ আওতায় চীনের সামরিক গবেষণাগারে এ ভাইরাসটি তৈরি করা হয়। প্রাণঘাতী কোনো ভাইরাসের মাধ্যমে শত্রুপক্ষকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার জন্যই মূলত এসব ভাইরাস তৈরি করা হয়। জৈবিক বিষাক্ত পদার্থ কিংবা ব্যাকটেরিয়া-ভাইরাস-ছত্রাকের মতো সংক্রামক অণুজীবের মাধ্যমে বায়োলজিক্যাল এসব অস্ত্র তৈরি করা হয় অস্ত্র ছাড়াই মানুষ হত্যার উদ্দেশ্যে।

টুইটারে এরইমধ্যে ভাইরাল হয়েছে এই উপন্যাসের পোস্ট। টুইটারে উপন্যাসের যে ছবিটি প্রকাশিত হয়েছে তার কিছু অংশ লাল কালিতে চিহ্নিত করা। তাতে বলা হচ্ছে, সামরিক বাহিনীরা এটিকে উহান-৪০০ বলে, কারণ উহান শহরের ঠিক অদূরে আরডিএনএ গবেষণাগারে এটি তৈরি করা হয়েছিলো এবং এটি ছিলো মানুষের তৈরি অণুজীবের ৪০০তম কার্যক্রম।

প্রভাবশালী দেশগুলোতে বায়োলজিক্যাল অস্ত্র তৈরির ইতিহাসও বেশ পুরোনো। অনেক যুদ্ধেই অ্যানথ্রাক্স, কলেরা, প্লেগের মতো নানা ধরনের প্রাণঘাতী ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়া একাধিকবার ব্যবহৃত হয়েছে। খুব দ্রুত ছড়াতে সক্ষম নতুন করোনাভাইরাস থেকে সৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগে এখন পর্যন্ত চীনে ১ হাজার ৭৭০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ হাজার ছাড়িয়েছে। বাংলাদেশেও আক্রান্ত সন্দেহে পরীক্ষা করা হচ্ছে চীনফেরত অনেককেই।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন :